বুকভরা আশার নিয়ে দেশ ছেড়ে এসেছিলেন ফেসবুক প্রেমিকের কাছে, কিন্তু হতাশ হয়ে আবার ফিরে যেতে হচ্ছে, পড়ুন বিস্তারিত…


মনে কষ্ট নিয়ে দেশে ফিরছেন সাত সমুদ্র তেরো নদী পাড়ি দিয়ে প্রেমের টানে পটুয়াখালীর বাউফলে প্রেমিকের বাড়িতে ছুটে আসা ইন্দোনেশিয়ান তরুণী নিকি উল ফিয়া। ব্যথিত হৃদয়ে দেশে ফিরছেন এই বিদেশিনী।

ইতোমধ্যে বিমানের টিকিটের জন্য ট্রাভেল এজেন্সির সঙ্গে কথাও বলেছেন নিকি উল ফিয়া। যার টানে বাংলাদেশে ছুটে আসা সেই প্রেমিক ইমরানের বিয়ের বয়স না হওয়ায় তাকে ফিরে যেতে হচ্ছে দেশে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তরুণীর প্রেমিক ইমরানের ২১ বছর না হওয়ায় আইনি জটিলতা দেখা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে স্বদেশে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তবে ইমরানের বিয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করবেন নিকি উল ফিয়া।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাউফলের দাসপাড়া ইউনিয়নের দাশপাড়া গ্রামের পুরান বাবুর্চি বাড়ির দেলোয়ার হোসেনের ছেলে পটুয়াখালী সরকারি কলেজের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মো. ইমরান হোসেনের (১৯) সঙ্গে এক বছর আগে ফেসবুকে ইন্দোনেশিয়ান তরুণী নিকি উল ফিয়ার (২৪) পরিচয় হয়।

একপর্যায়ে প্রেমের সর্ম্পকে জড়ান তারা। নিকি উল ফিয়া ইন্দোনেশিয়ার সুরা বায়া বিভাগের জাওয়া গ্রামের মি. ইউ লি আন থোর মেয়ে। তিনি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার একটি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা করছেন।

পটুয়াখালীর বাউফলের ছেলে ইমরানের ভালোবাসার টানে গত ১ ডিসেম্বর সুদূর ইন্দোনেশিয়া থেকে ঢাকা চলে আসেন নিকি উল ফিয়া। সেখান থেকে ৩ ডিসেম্বর প্রেমিক ইমরানের পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার দাশপাড়া গ্রামের বাড়িতে যান তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, প্রেমিকের বাড়িতে আসার পর নিকি যখন জানলেন, আইন অনুযায়ী প্রেমিক ইমরানের বিয়ের বয়স ২১ হয়নি। তখন তিনি হতাশ হয়ে পড়ে। তার হাস্যোজ্জ্বল মুখ মলিন হয়ে যায়। নিরবে চোখের পানিও ফেলেছেন তিনি। পরে স্বদেশে ফেরার সিদ্ধান্ত নেন নিকি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নিকি উল ফিয়া বলেন, ইমরানের বিয়ের বয়স না হওয়ার খবরটি জানার পর আমি ব্যথিত হই। ২-১ দিনের মধ্যে আমার দেশে চলে যাব। বিমানের টিকিটের জন্য ট্রাভেল এজেন্সির সঙ্গে কথা হয়েছে। তবে ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যদের ব্যবহারে আমি মুগ্ধ। ইমরানের বিয়ের বয়স না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করব আমি। তার বিয়ের বয়স পূর্ণ হলে তখনই বিয়ে করব আমরা।

এর আগে প্রেমের টানে বাংলাদেশে ছুটে আসা মার্কিন তরুণী মেনডি কুসার (৩৯) দেশে ফিরে যান। নারায়ণগঞ্জের তরুণ ফারহান আরমানকে (৩০) বিয়েও করেন তিনি। ভালোবাসার মানুষটিকে বিয়ে করে ৭-৮ মাস সংসার করলেও পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর ঘর ছেড়ে দেশের মাটিতে চলে যেতে বাধ্য হন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*