‘পিরিয়ডস’ নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খুললেন ৯ অভিনেত্রী – প্রতিবাদে সরব সমাজের একাংশ


১৩৩ কোটি মানুষের “ভারতবর্ষ” এমনই এক দেশ যেখানে প্রকাশ্যে যৌনতা নিয়ে কথাবলা নিসিদ্ধ। একবিংশ শতাব্দীর এই মডার্ন সোসাইটি এখনও মানুষের এই প্রাকৃতিক ধর্মের ব্যাপারে আজও কুসংস্কারাছন্ন।

যৌনতা নিয়ে প্রকাশ্যে কথাবলাই হোক বা মেয়েদের প্রাকৃতিক ঋতুচক্র কোনভাবে সামনে আনাই হোক, সবেতেই একটু নিজেদের আড়ালে রাখতে ভালোবাসে এই সমাজ। আধুনিকতার এই যুগেও মেয়েদের ঋতুচক্র আজও অপবিত্র। শুধু তাইনয়, এমনও কিছু কিছু সমাজ আছে যেখানে ঋতুচক্রের সময় তাদের একঘরে করে রাখাহয়। মন্দিরে ওঠা বারন, ঠাকুর পূজো বারন, বড়োদের আশীর্বাদ নেওয়া বারন, এসবতো রয়েইছে। যদিও প্রকৃতির শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা, সূর্যোদয় সূর্যাস্তের মতো মেয়েদেরও এটি একটি স্বাভাবিক ক্রিয়া তা সত্বেও গোঁড়ামি ভরা এই সমাজ এখনও ব্যাপারটাকে হজম করে উঠতে পারেনি।

এবার সমাজের বাকি মেয়েদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বলিউডের ৯ প্রখ্যাত অভিনেত্রী। “ঋতুচক্র” নিয়ে প্রকাশ্যে মুখখুলেছেন তাঁরা। আসুন পড়ে নেওয়াযাক ঠিক কি বললেন-

করিনা কাপূর খান

করিনা কাপূর খান লক্ষনৌ এর একটি ইভেন্টে এসে মুখ খোলেন ‘ঋতুচক্র’ নিয়ে। তিনি বলেন –

“I’d like to see this issue being talked about in the media, on websites, not behind closed doors.” Furthermore, she stated that “God created this, periods are natural. So, how can we say women are impure during their periods? I have a 30 days schedule in a month. We do not stop working but use the right products, keep healthy and clean. Why should others, especially girls, be termed dirty or compelled to miss school?”

করিনা কাপূর খান কে বেশ কিছুবারই মেয়েদের পোশাক – আসাক, চালচলন নিয়ে কূমনোভাবের বিরুদ্ধে মুখখুলতে দেখাগেছে এর আগেও।

আলিয়া ভাট

এমনকি আলিয়া ভাট কেও ‘ঋতুচক্র’ নিয়ে মুখ খুলতে দেখা গেছে বেশ কিছুবার। একটি সাক্ষাতকারে তিনি বলেন “My third concern is over girls not being allowed to enter shrines when they’re menstruating. No conditions must apply there. How are women deemed ashudh when they’re bleeding? It’s beyond ridiculous. Don’t people know why we bleed? It’s a sign that we have the ability to give birth to another life. Disallowing women to enter temples during their periods angers me. It’s absurd because it’s the rule of nature. There’s nothing wrong with you, girls. It’s just a thought process that needs to change.”

পরিনিতী চোপড়া

বলি কুইন পরিনিতী চোপড়া  ‘ঋতুচক্র’ –এর ব্যাপারে সমাজের দৃষ্টিকোনের তীব্র নিন্দা করে বলেছেন “It’s a shame that men are still not aware of  Periods! It’s a shame that men call it a problem!” She also added, “You have to talk about it…You can’t be shy about it.” She even added, “It’s 2016, it’s crazy that we talk like this!”

 

টুইঙ্কেল খান্না

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়া কে এক সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বলেন “It is a subject I believe in. It’s a subject that I have written extensively about. Menstruation is a taboo not just in our country but all over the world. It’s not something which is openly discussed and I really don’t see the logic in it. It’s a biological function, why should there be shame around it. That is what I am trying and hoping to describe through Padman.”

 

স্বারা ভাস্কর

প্রাক্তন স্কুলে বক্তৃতা দিতে এসে স্বারা বলেন, তিনি সমাজের এই কুসংস্কার দূর করতে লড়তে চান। তিনি বলেন “Periods are not a reason to skip school, bunk classes, stop playing sports or sit at home alone. Periods are not a crime, nor are they taboo. They can be discussed. Even on the dinner table!” 

কৃতি সানন

একটি জনপ্রিয় স্যানিটারি ন্যাপকিন সংস্থার এক ইভেন্টে এসে কৃতি বলেন  “A shocking 58% of urban women from the southern states of India do not touch pickle during their periods, more so 60% of women across South India agree that it’s embarrassing to watch sanitary napkins commercials while watching TV with the family. I want to encourage & urge all these women to go forth and defy regressive traditions in their pursuit of success.” 

 

রাধিকা আপতে

রাধিকা আপতে, যিনি বলিউডে খোলামেলা ছবির জন্যই বিখ্যাত, তিনি এই ব্যাপারে এক সাক্ষাৎকারে বলেন “I think that it is crucial because the constant reminder when you are chumming that ‘I am on period’ does stop you from doing certain things. For example if I am chumming, I will be like, ‘Oh my god I have to shoot a song today’, or ‘Oh my god, I have to wear this today’ or some people say I have extra hours of work, or I don’t know should I go for picnic or play Holi. Why should your period which is actually something that you have to go through every month stop you from doing anything.” 

 

কালকি কোয়েচলিন

কালকি এর মতে, সমাজে ঋতুচক্র নিয়ে কুসংস্কার গুলো যত তাড়াতাড়ি মুক্ত হবে ততই সমাজের পক্ষে মঙ্গল। তিনি বলেন “My profession demands extensive travel, long shooting hours and rigorous rehearsals – and I simply cannot restrict myself due to these taboos imposed on us.” She added, “While some of us women go about our professional lives with relative ease in the days of our periods, there are thousands my age who live every day bogged down by restrictions and taboos. I want to encourage and urge women to go forth and defy regressive traditions in their pursuit of success…” 

 তানভি আজমি

প্রখ্যাত অভিনেত্রী তানভি এক ইভেন্টে এসে বলেন “I have personally successfully defied these taboos during my time. If I had followed these ‘pseudo’ traditions like my peers did, I would have been stuck with a regressive mindset and would have brought up the next generation with similar restrictions! As parents, we must have the right discussions around menstruation – and at correct times – with our children. Taboos that perpetuate our society must simply have no place. It is very encouraging to see that 96% Women from Bangalore agree that they should talk more openly about menstruation. Menstruation is considered a sign of good health & fertility and should be taken in that spirit.”

অভিনেত্রীদের এইভাবে প্রকাশ্যে ঋতুচক্র নিয়ে আলোচনার প্রতিবাদ জানিয়েছে কিছু  সংগঠন। তাদের দাবি, মেয়েদের এই গোপন ব্যাপারগুলো সবার সামনে না এনে গোপনে রাখাটাই শ্রেয়। শুধু তাই নয়, এই নিয়ে সোসাল মিডিয়ায় প্রতিবাদ করতেও দেখাযায় কিছু মানুষকে।

সৌজন্যে

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*