নরেন্দ্র মোদি যে বিশেষ উপহার দিলেন ট্রাম্প-কন্যা ইভাঙ্কাকে!


অতিথি আপ্যায়ণে ইভাঙ্কা ট্রাম্পের গুড বুকে জায়গা করে নিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কন্যার জন্য যেভাবে হায়দরাবাদকে সাজিয়ে তোলা হয়েছে, যেভাবে তাকে এ দেশে স্বাগত জানানো হয়েছে, তা দেখে মুগ্ধ ইভাঙ্কা।

বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলনে অতিথির হাতে একটি বিশেষ উপহারও তুলে দিলেন নরেন্দ্র মোদি। কী সেই উপহার? ইভাঙ্কাকে স্যাডেলি ক্রাফ্টের ডিজাইন করা একটি কাঠের বাক্স উপহার দিলেন মোদি। স্যাডেলি ক্রাফ্ট হল গুজরাটের সুরার একটি আঞ্চলিক শিল্প। অত্যন্ত নিপুনভাবে কাঠের উপর জ্যামেতিক নকশা তুলে ধরা হয়।

এই শিল্পকলা সাধারণত দরজা, জানলা এবং কাঠের আসবাবে দেখা যায়। তবে ইদানীং গোটা দেশে এই অপূর্ব শৈলী ছড়িয়ে দিতে ফটো ফ্রেম, গয়নার বাক্সেও ধরা দিচ্ছে স্যাডেলি ক্রাফ্ট। এমন অসামান্য শৈল্পিক উপহার পেয়ে আপ্লুত ইভাঙ্কা।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের কন্যার পাশাপাশি তার একটি পরিচয় তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের অন্যতম পরামর্শদাতা। এই পরিচয়ে এটা তার প্রথম ভারত সফর। আর প্রথম সফরেই নজর কাড়লেন তিনি। পাকা পরামর্শদাতা হিসেবে ভারতের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগোনোর কথাও যেমন বললেন, তেমনই নরেন্দ্র মোদির উত্তরণকে কুর্নিশ জানাতেও ভুললেন না।

জানালেন, প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে ব্যবসা শুরু করতে পারলে দেশের ১৩০ কোটি মানুষের দারিদ্র ঘুচবে। শুধু কথাতেই নয়, বেশভূষাতেও নজর কাড়লেন তিনি। পরনের পার্পল ও হলুদ ফুলের প্রিন্টেড নি লেংথের সবুজ রঙের গাউনে দারুণ গ্ল্যামারাস দেখাচ্ছিল তাকে। তবে শুধু তো এই সম্মেলন নয়, ইভাঙ্কা এসেছেন তিনদিনের সফরে।

আর শোনা যাচ্ছে, ভারত সফরে ভারতের বেশেও দেখা যাবে তাকে। হ্যাঁ, শাড়ি পরে খাঁটি ভারতীয় নারী হয়ে উঠবে এই মার্কিনি ভিআইপি। ডিজাইনার নীতা লুল্লার ইভাঙ্কার জন্য একটি শাড়ি ডিজাইন করেছেন। সোনালি রঙের পাড়ের সাদা শাড়িতে সেজে উঠবেন তিনি। শাড়িতেও থাকছে পুরাণ ও সভ্যতার ছোঁয়া।

নীতা বলছেন, “ইভাঙ্কার জন্য শাড়ি ডিজাইন করতে পারাটা সত্যিই সৌভাগ্যের। আঁচলে সেতার ক্লাসিক্যাল মিউজিককে উৎসর্গ করে তৈরি। আর যে বৃন্দাবনে রাধা-কৃষ্ণ রাসলীলা করতেন, শাড়ির পাড়ে থাকছে তারই ছবি।”

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*