আধুনিক নেটওয়ার্ক অবকাঠামো-১

নেটওয়ার্ক অবকাঠামো নিয়ে আমি অনেকদিন ধরে কাজ করি। আর এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা কম হয়। একটি নেটওয়ার্ক কাঠামো তৈরী হয়
কোন নেটওয়ার্ক অবকাঠামো তৈরী করতে গিয়ে যে বিষয়গুলোর প্রতি সবসময় নজর দিতে হবে-

১. আয়ুঃ

কত বছর নেটওয়ার্কটিতে আর কোন মেইনটেনেন্স করবো না। কোন একটি প্রতিষ্ঠান বা ইন্ডাস্ট্রির ক্ষেত্রে ২০ বছরের মধ্য ইকুইপমেন্টগুলো যাতে ভাল থাকে তার নিশ্চয়তা দিয়ে অবকাঠামোর জিনিসগুলো কিনতে হবে। অনেক বেশি বছরের জন্য নেটওয়ার্কটি নির্মান করা হরে ভাল ব্র্যান্ডের ইকুইপমেন্ট কিনতে হবে। এবেপারে একটি ধারনা দেই- একটি কানেকটর ৫ টাকায়ও পাওয়া যায়। আবার একটি কানেকটর ৩০০ টাকায়ও কিনতে হতে পারে। ডিলিংক বা মাইক্রোনেটের কানেকটর মাঝারী মানের কানেকটর ২০-২৫ টাকায় পাওয়া যায়। আপনি যে নেটওয়ার্কটি ২০ বছর চলার জন্য তৈরী করবেন সেটির কানেকটর বা মডুলার অবশ্যই সবচেয়ে সেরাটা হতে হবে।

২. সমস্যা সমাধানঃ

যদি কোন একটি কানেকশনে সমস্যা দেখা যায় তাহলে কিভাবে তার সমাধান করা হবে। কোন একটি কানেকশনের ক্যাবল সুইচের কোন পোর্টে লাগানো তা সহজে যাতে বুঝা যায় তার ব্যবস্থা রাখতে হবে। এটার জন্য আমরা সাধানত ক্যাবল, প্যাচকর্ড ও প্যাচ প্যানেলে লেবেল লাগিয়ে দিয়ে থাকি।

৩. ব্যান্ডউইথঃ

নেটওয়ার্কের বেশি ট্রান্সমিট হবে বা বেশি ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হবে এমন সংযোগ গুলো আলাদা করা। এবং তাদের সুইচের গিগাপোর্টের সাথে সংযোগ রাখা। যেমন- আপনার কোন একটি লোকাল সারভারে এপ্লিকেশন সারভার যা সব ক্লাইনট মেশিনেরই দরকার হবে বা ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে ইন্টারনেট সংযোগ যা সব মেশিন ব্যবহার করবে। তা আপনার নেটওয়ার্কে সংযোগ প্রদানের ক্ষেত্রে আলাদা ভাবে চিহ্নিত করে রাখতে হবে। কারন সেই কানেকশন যে কোন সময় সমস্যা হলে সমগ্র সার্ভিই সমস্যাগ্রস্ত হবে।

৪. ভবিষ্যতঃ

নেটওয়ার্ক নোড ভবিষ্যতে বাড়বে কিনা সেই চিন্তা আগে থেকেই করে রাখতে হবে। যদি এক বছরের মধ্যে আরো নেটওয়ার্ক নোড দরকার হবে বলে মনে হয় তাহলে এর জন্যও পর্যাপ্ত নোডের সুইচ কিনতে হবে।

৫. ফ্লেক্সিবিলিটিঃ

কোন একটি কানেকশন পরিবর্তিত হয়ে কাছা কাছি অন্য জায়গায় যাওয়ার সম্ভবনা থাকলে কিছু তার বেশি নিয়ে ইনস্টল করতে হবে।

৬. সৌন্দর্যঃ

ওয়্যার সবসময়ই দেখতে খারাপ লাগে। আর তাই এটি যাতে না দেখা যায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে। এ বেপারে ইন্টরিয়র ডিজাইনার ও কনস্ট্রাকশন সাথে

এখন বেশ কিছু নেটওয়ার্ক ইকুইপমেন্ট নিয়ে আলোচনা করবো যা সাধারনতঃ কোন নেটওয়ার্ক অবকাঠামোর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আর এই ইকুইপমেন্টগুলো ব্যবহার করে একটি নেটওয়ার্ক লেআউট করার ক্ষেত্রে কি কি জিনিস মনে রাখতে হবে তা বলবো।

আরো পড়ুনঃ

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*