অ্যান্ড্রয়েড ফোনে প্যাটার্ন লক ভুলে গেলে যেভাবে খুলবেন…


এখন দুনিয়া স্মার্টফোনের। ‘করলো দুনিয়া মুঠঠি মে’ বলে মোবাইল কোম্পানিগুলিও নতুন নতুন টেকনোলজি দেওয়া ফোন আমাদের হাতে তুলে দিচ্ছে। মোবাইলে আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। এই সমস্ত দরকারি তথ্য যাতে অন্য কারও হাতে চলে না যেতে পারে, তার জন্য মোবাইলে নিরাপত্তার ব্যবস্থা আগে থেকেই ছিল। কিন্তু স্মার্টফোন আসার পর থেকে সেই নিরাপত্তার ব্যবস্থাটাও আরও অনেক কঠোর হয়েছে। আমরা আমাদের ইচ্ছে মতো পাসওয়ার্ড দিয়ে রাখতে পারি ফোনে। আচ্ছা যদি কখনও সেই পাসওয়ার্ডটাই ভুলে যান, তখন কী করবেন?

Image result for if-forgot-how-to-open-your-smartphone-pattern-lock

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের প্রাইভেসির জন্য আমরা অনেকেই প্যাটার্ন লক ব্যবহার করে থাকি। এই লক খুবই কার্যকরী কারণ এই লক ওপেন করা ছাড়া কেউ ফোনের ভেতরে প্রবেশ করতে পারে না। আবার এই প্যাটার্ন নিজেই ভুলে গেলে দুর্ভোগের শেষ থাকে না। এ সমস্যা থেকে রেহাই পেতে হলে মোবাইল ফোন রিসেট কিংবা কাস্টমার কেয়ারে যাওয়া ছাড়া আপনার হাতে আর কোন অপশন নাই।কেউ কেউ একে হার্ড রিসেট বলে কারণ এটি সেটের একচুয়্যাল ফ্যাক্টরি সেটিংস ফিরিয়ে আনে। আসুন জেনে নেই কিভাবে আমরা কোন অ্যান্ড্রয়েড সেট রিসেট দেবো।

Image result for if-forgot-how-to-open-your-smartphone-pattern-lock

প্রথমেই ফোনটির সুইচ অফ করুন, এবার ব্যাটারি ১০ সেকেন্ডের জন্য রিমুভ করুন। আবার ব্যাটারি লাগিয়ে একসঙ্গে ‘up volume key’, ‘Power button’ এবং ‘Home button’ চেপে ধরতে হবে যতক্ষণ না Recovery Mode Screen আসে। স্যামসাং মোবাইলের ক্ষেত্রে উপরের পদ্ধতি কাজ করে। আবার সিম্ফোনি কিংবা ওয়াল্টন মোবাইলের ক্ষেত্রে মডেল অনুযায়ী ‘up volume key’, ‘Power button’ কিংবা ‘Down volume key’, ‘Power button’ চেপে ধরলেই Recovery Mode Screen চলে আসে এক্ষেত্রে হোম বাটনে চেপে ধতে হয় না।

Related image

এরপর ভলিউম কী ব্যবহার করে কার্সর নিচে নামিয়ে ‘wipe data/factory reset’ অপশনে আনুন এবং সিলেক্ট করার জন্য হোমে বাটনে প্রেস করুন। এখন নিশ্চিত করার জন্য আরেকটি স্ক্রিন আসবে এখানে ‘Yes’ বাটন সিলেক্ট করতে হবে।
এবার কিছুসময় অপেক্ষা করুন রিসেট হওয়ার পর আপনার ফোন আপনা-আপনি চালু হবে, ততক্ষন অপেক্ষা করুন।

 

Related image

রিসেট করার সময় আপনাকে যা মনে রাখতে হবেঃ

১। ইন্টারনাল মেমোরি বা ফোন মেমোরির ইন্সটল করা সমস্ত অ্যাপ ও ডাটা হারিয়ে যাবে।
২। ফোন মেমোরিতে সেভ করা ফোন নাম্বার মুছে যাবে।
৩। আপনাকে আবারও আপনার প্রয়োজনীয় অ্যাপগুলো ইন্সটল করে নিতে হবে।
৪। আপনার কাস্টমাইজ করা সমস্ত সেটিংস মুছে যাবে।



Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*